free web tracker

শেয়ার করুন:

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ জাপানের একটি এয়ারপোর্টে স্বাস্থ্য সচেতনতা বাড়াতে টয়লেট ব্যবহারের পর ব্যবহারকারীদের স্মার্টফোন পরিষ্কারের জন্য টয়লেট পেপারের ব্যবহার চালু করেছে!

toilet-paper-for-smartphones

জাপানের নারিতা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে করা নতুন এক গবেষণায় দেখা গেছে, মোবাইল ফোন টয়লেট আসনের চেয়ে বেশি জীবাণু ধারণ করে থাকে। এই সমস্যা বিপজ্জনক মাত্রায় পৌঁছাতে পারে, এর কারণ হলো খুব কম ব্যবহারকারীই টয়লেট ব্যবহারের পর তাদের ফোনটি মুছে নিতে অভ্যস্ত।

এই পর্যন্ত বিমানবন্দরে ৭ টয়লেটে এমন ৮৬ কিউবিক ‘স্মার্টফোনের জন্য টয়লেট পেপার’ সুবিধা যোগ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ দৈনিক পত্রিকা ইন্ডিপেনডেন্ট। এই কাগজের রোলকে স্বাভাবিক টয়লেট পেপারের একটি ছোট সংস্করণ সেটি নির্দিধায় বলা যায়। টেলিযোগাযোগ জায়ান্ট এনটিটি ডোকোমো এটি ইনস্টল করেছে নলে জানানো হয়।

এই পেপারটি স্মার্টফোনকে জীবাণুমুক্ত করবে। কেবল তাই নয়, এতে ইংরেজিতে ওয়াই-ফাই পাসওয়ার্ড ও ভ্রমণ সংক্রান্ত তথ্যও প্রিন্ট করা থাকছে! বাইরের দেশ হতে জাপানে আসা পর্যটকরা ওয়াই- ফাই সংযোগ পেতে সমস্যার সম্মুখীন হন। তাই তাদের জন্য এই সুবিধাটি বেশ কার্যকর হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় জাপান প্রতিনিয়তই জনসাধারণের ব্যবহারের শৌচাগারগুলোতে প্রযুক্তি বিষয়ক সুবিধা যোগ করে আসছে। দেশটির অধিকাংশ শৌচাগারেই উষ্ণ বসার স্থান ও পর্যাপ্ত পানি-বাতাসের ব্যবস্থা রয়েছে। এখানে বিশেষ গ্যাজেটের ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে, যা ফ্ল্যাশ বা মিউজিক বাজিয়ে ব্যবহারকারীর সৃষ্ট অস্বস্থিকর শব্দ ঢেকে রাখবে। তাছাড়া সাম্প্রতিক মডেলে এমন ব্যবস্থা রাখা হয়েছে যা টয়লেটের অবাঞ্ছিত গন্ধও দূর করবে!

উল্লেখ্য, জাপানের প্রায় ৭৬ শতাংশ বাড়িতেই নানারকম সুবিধাওয়ালা টয়লেট আসন ব্যবহার করা হয়ে থাকে।


সতর্কবার্তা:

বিনা অনুমতিতে দি ঢাকা টাইমস্‌ - এর কন্টেন্ট ব্যবহার আইনগত অপরাধ, যে কোন ধরনের কপি-পেস্ট কঠোরভাবে নিষিদ্ধ, এবং কপিরাইট আইনে বিচার যোগ্য!

December 28, 2016 তারিখে প্রকাশিত

আপনার মতামত জানান -

Loading Facebook Comments ...

মন্তব্য লিখতে লগইন করুন
Close You have to login

Login With Facebook
Facility of Account