free web tracker

শেয়ার করুন:

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ঈদে মেয়েদের প্রধান আইটেম হলো মেহেদি। মেহেদি ছাড়া যেনো ঈদ অসম্পূর্ণ থেকে যাবে। আজ রয়েছে মেহেদী রং গাঢ় করার কয়েকটি কৌশল।

Mehdi out some strategies to dark colors

এক সময় ছিল যখন ঈদের আগের রাতকে চাঁদ রাত না বলে বলা হতো মেহেদী রাত। ঈদের আগের দিন সকাল হতে চলতো মেহেদী লাগানোর উৎসব। মেয়েরা নাওয়া খাওয়া ছেড়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন মেহেদী লাগানোর জন্য। আগে গাছ থেকে পাতা ছিঁড়ে বেটে তারপর সেটি হাতে লাগানো হতো। আধুনিকতার সঙ্গে সঙ্গে সব কিছু যেমন পরিবর্তন হয়েছে, ঠিক তেমনি মেহেদীরও পরিবর্তন ঘটেছে। বর্তমানে কষ্ট করে মেহেদী বাটতে হয় না। ঘরের পাশের দোকানে পাওয়া যায় টিউব আকারে মেহেদী। ডিজাইনের বিষয়টিও যেনো সহজ হয়ে গেছে। একটা ক্লিক করলে হলো, চোখের সামনে চলে আসবে নিত্য নতুন মেহেদীর ডিজাইন! তবে যতো সুন্দর ডিজাইনই হোক, যদি মেহেদি রং গাঢ় না হয় তাহলে আপনার কষ্ট আরও বাড়ে। তাই মেহেদীর রং গাঢ় ও স্থায়ী করার কার্যকরী কয়েকটি কৌশল জেনে নিন।

দীর্ঘ সময় মেহেদী হাতে রাখুন

মেহেদী রং গাঢ় করার সবচেয়ে সহজ এবং আদি পদ্ধতি দীর্ঘ সময় পর্যন্ত মেহেদী হাতে রাখা। অন্তত ৭ হতে ৮ ঘণ্টা পর্যন্ত মেহেদী হাতে রাখতে হবে। সম্ভব হলে ১২ ঘন্টা মেহেদী হাতে রাখুন। আবার রাতে মেহেদী হাতে লাগিয়ে সকালে উঠিয়ে ফেলতে পারেন। মেহেদী যতো বেশি সময় হাতে রাখতে পারবেন রং ততোই গাঢ় হবে।

চিনি ও লেবুর মিশ্রণ

প্রথমে পানির সঙ্গে চিনি ফুটিয়ে জ্বালিয়ে নিন। চিনি পানি ঠান্ডা হওয়ার পর এতে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে নিন। মেহেদী শুকিয়ে আসলে চিনি ও লেবু মিশ্রিত ওই পানি মেহেদী উপর লাগান। এই কাজটি কয়েকবার করতে হবে। এতে করে মেহেদি রং গাঢ় হবে।

সরিষা তেল ব্যবহার

মেহেদী হাত হতে উঠানোর পর হাতে সরিষা তেল ম্যাসাজ করুন। এই তেল হাত গরম করে যা মেহেদী রং গাঢ় করতে সাহায্য করবে।

গরম ভাপ দেওয়া

জানা গেছে, লবঙ্গের ভাপ নাকি মেহেদির রং গাঢ় করতে সাহায্য করে। লেবু-চিনির পানি দেওয়ার পর লবঙ্গ ভাপ খুব বেশি কার্যকর। প্রথমে একটি তাওয়ার উপর কয়েকটি লবঙ্গ গরম করতে দিন। তারপর লবঙ্গ ধোঁয়ার উপর আপনার মেহেদি দেওয়া হাত রাখুন। কিছু সময় এমন করলে মেহেদি রং গাঢ় হবে।

কাগজে হাত মুড়িয়ে রাখুন

মেহেদি দেওয়া হাত কাগজে মুড়িয়ে রাখলে রং গাঢ় হয়। তবে বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, এতে ডিজাইন নষ্ট হতে পারে। অবশ্য প্লাষ্টিকের কাগজ দিয়ে মুড়িয়ে রাখতে পারেন।

সতর্কতা:

# মেহেদী তুলার সঙ্গে সঙ্গে হাত পানি দিয়ে ধুবেন না।
# সাবান পানি দিয়ে মেহেদী রাঙা হাত ধুবেন না।
# হাতে মেহেদী লাগানোর পর শেভিং করা হতে বিরত থাকতে হবে।
# মেহেদী দ্রুত শুকানোর জন্য হেয়ার ড্রাইয়ার ব্যবহার করা যাবে না।
# লেবু-চিনির পানি অতিরিক্ত ব্যবহার করা ঠিক নয়।


সতর্কবার্তা:

বিনা অনুমতিতে দি ঢাকা টাইমস্‌ - এর কন্টেন্ট ব্যবহার আইনগত অপরাধ, যে কোন ধরনের কপি-পেস্ট কঠোরভাবে নিষিদ্ধ, এবং কপিরাইট আইনে বিচার যোগ্য!

July 6, 2016 তারিখে প্রকাশিত

আপনার মতামত জানান -

Loading Facebook Comments ...

মন্তব্য লিখতে লগইন করুন

আপনি হয়তো নিচের লেখাগুলোও পছন্দ করবেন

আপনার প্রচুর অর্থলাভ কিভাবে হবে তার কয়েকটি লক্ষণ দেখে বুঝে নিন!
বিশেষজ্ঞের মতামত: ‘যাদের আত্মবিশ্বাস কম তারা সেলফি তোলেন’!
সাকিব, তামিম, মুশফিক, রিয়াদের উচ্চতা আমার থেকে অনেক বেশি: মাশরাফি
কেনো বুড়ো আঙুলে আংটি পরা নিষিদ্ধ?
‘তক্ষক’ নামে এই প্রাণিটি কেনো এতো মহামূল্যবান?
মৃত ব্যক্তির নামে কী কোরবানি দেওয়া জায়েজ?
ইসলামের ব্যাখ্যা: হিজড়া সন্তান জন্ম হয় কেনো?
নতুন উচ্চতায় বাংলাদেশ: ইতিহাস সৃষ্টি করছেন ইসমাত জাহান
গুলশান ট্রাজেডি: বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষিত যুবক যখন সন্ত্রাসী!
নারীদের লং কামিজে ঈদ ফ্যাশন
মুহাম্মাদ আলী সম্পর্কে কিছু অজানা তথ্য জেনে নিন
প্রিয়জনদের সঙ্গে যেভাবে ভুল বুঝাবুঝি হয়
Close You have to login

Login With Facebook
Facility of Account